Skip to content

ক্লাইন্ট এর সাথে কাজের অভিজ্ঞতা ১

ক্লাইন্ট এর সাথে কাজের অভিজ্ঞতা ১

 

মাস খানেক আগে শপিফাই এ একটা Application ডেভলপ করছিলাম। APP র কাজ ছিল WordPress and Shopify এর মধ্যে প্রডাক্ট সিঙ্ক করা। অর্থাৎ ওয়ার্ডপ্রেস এ প্রডাক্ট তৈরি করলে শপিফাই এ ও তৈরি হবে আবার শপিফাই এ তৈরি হলে ওয়ার্ডপ্রেস এও হবে। একই সাথে ইনভেন্টরি সিঙ্ক হবে। শপিফাই এ প্রডাক্ট সেল হলে ওয়ার্ডপ্রেস এ কমে যাবে আবার ওয়ার্ডপ্রেস এ হলে শপিফাই এ; ভাইসভার্সা।

কিন্তু সমস্যা হল তার মোট প্রডাক্ট ৫০০০০ এর বেশি। কিন্তু Shopify ১ মিনিটে ৪০ র বেশি রিকোয়েস্ট হ্যান্ডল করতে পারে না। তার মানে দ্বাড়ায় ৫০০০০ হাজার প্রডাক্ট সিঙ্ক করতে ২০ ঘণ্টা লাগবে। কিন্তু ক্লাইন্টের রিকোয়ারমেন্ট হল প্রত্যেক ১৫ মিনিটে প্রডাক্ট সিঙ্ক করবে।

বেশ কঠিন সমস্যা। অ্যাপ তৈরি। কিন্তু প্রডাক্ট সিঙ্ক তো কাজ করে না। ক্লায়েন্ট পাগল হয়ে যাচ্ছে। কাজ সাবমিট এর সময় প্রায় শেষ। কোন উপায় খুঁজে পাচ্ছি না। আমি সাধারণত গ্রুপে খুব বিপদে না পড়লে সাহায্য চেয়ে পোষ্ট করি না। উপায় খুঁজে যাচ্ছি। সময় শেষ হওয়ার ১ দিন আগে ক্লায়েন্ট মেসেজ দিল “তোমার প্রিভিয়াস ক্লায়েন্ট রিভিও তো খুব ভাল । কিন্তু তুমি তো আমার বিজনেসের ১২ টা বাজায় দিচ্ছ। তোমার জন্য আমি রিফান্ড দিতে দিতে কাহিল । পারবা না কি অন্য কাউকে খুঁজব?”

এই মেসেজ দেখে ঘুমাতে গেলাম, কোন রিপ্লাই না দিয়ে। মনে মনে ভাবলাম গত ৩ বছরে কোন কাজে আটকাই নি। এবার বোধহয় আটকে যাব।
রাতে শুয়ে শুয়ে ভাবলাম, আচ্ছা এমন তো না যে প্রতি ১৫ মিনিটে ৫০০০০ প্রডাক্ট এর ডাটা চেঞ্জ হয়। তাহলে এক কাজ করি, সব প্রডাক্ট কাউন্ট ডাটা ডাটাবেসে সেভ করি। ডাটাবেস আপডেটের সময় পূর্বের ডাটা আর কারেন্ট ডাটা ফর ইচ লোপ দিয়ে তুলনা করে এরপর শুধু মাত্র চেঞ্জ হওয়া ডাটা গুলো পাঠালেই তো হয়। যেই কথা সেই কাজ। বিছানা থেকে উঠে করে ফেললাম। এখন দেখলাম ১৫ মিনিটে ডাটা চেঞ্জ হয় মাত্র ১৫-৫০ টা প্রডাক্টের। আর ফুল লুপ চালাতে সময় লাগে ৬০০ মিলি সেকেন্ড। অর্থাৎ আমি যদি চাই ৫ মিনিট অন্তর অন্তর ডাটা সিঙ্ক করতে পারব।

আসলে সমাধানটা খুব সহজ ছিল। কিন্তু আমি গতানুগতিক পথে চিন্তা করেছি। আর একটা বিষয় হচ্ছে ব্যাপার না পারব এই ভাব টা এসেছিল।
প্রত্যেক টা সমস্যা আলাদা, এলগোরিদম ও আলাদা। code করার আগে ভেবে নিলে কাজ সহজ হয়ে যায়। এই কাজ শেষে ক্লাইন্ট খুশি হয়ে ১০০USD টিপসও দিয়েছিল। বেশ প্রশংসাও করেছে।

নটে গাছটি মুড়ল আমার গল্পটিও ফুরল। শুভ রাত্রি।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *